আমি স্বপ্ন, অবিনশ্বর




ঐ ভগবানও মোরে এড়াতে পারে নি
তুই কোথাকার কে?
জানিস কী তুই এসব কিছুর
ইন্ধনে আছে কে?


আমি আমি আমি, আমি থেকে শুরু
আমাতে মিলায়ে যাবি
আবার আমাকে পালন করিয়া
মরিয়া বাঁচিয়া খাবি

কোন অনুমতি, কোন আদেশ, মোরে
করিতে পারে নি পর
আমি নীরবে, বহু নীরবে তোর
মনেতে তুলেছি ঝড়

আমি বালক মনে সহসা এনেছি
কর্তা হবার স্বপ্ন
আমি কর্তাকে প্রায় একলা ক্ষণে
স্মৃতিতে করেছি মগ্ন

আমি ঐ তরুণের বুকের খাঁচার
বজ্র কঠিন শক্তি
আমি চোখের পাতায় জেঁকে বসে থেকে
তরুণীকে দেই মুক্তি

আমি কখনোবা ভুল, শুধুই ভ্রাণ্তি
পথকে করেছি কঠিন
তবু আমাতেই তোরা করবি যে ভর
নবীন হ আর প্রবীণ

তুই ছোট হ অথবা বড় কেউ, বা
গরীব কিম্বা ধনী
আমি দুঃখিত। আমি মানিনে সেসব
মনে মনে আমি ভ্রমি

আমি ছাড়িয়া তোদের ভেদাভেদ সব
ঐ ভিখারীরও জন্য
যার ইচ্ছে শুধুই রোজ সকালে
দু-চার মুঠি অন্ন

আমি নতুন বধূর মনের মধ্যে
শুধুই নিজেকে আঁকি
হাজারো রং এ নিজেকে সাজিয়ে
টুক করে দেই ফাঁকি

মোরে ছোট করতে পারিলি না তোরা
বেড়ে যাই চুপি চুপি
যতবার তুই ভুলিতে চাইবি
আমি আসিবো, বহুরূপী

আমি কখনো উপরে উঠিতে উঠিতে
সজোড়ে পড়িয়া যাই
ভেঙ্গে খান খান, পড়িয়া থাকি
অন্যেতে দেয় ঠাঁই

তু্ই কবি, মহা বোকা
মোরে তুলছিস এই খাতায়
ওরা তবুও চালাক, প্রয়োজন বুঝে
ছেড়ে যায় রাস্তায়

আমি মনেতে জন্মে, মনে মনে বাঁচি
তোরা হোলি নিরূপায়
আমি সনাতন, আমি অবিনশ্বর
মোরে এড়ানোই বড় দায়

Recommended Recommends

Comments

Contact Us